বিকাশ লিমিট সম্পর্কে বিস্তারিত | Bkash Limit

বিকাশ লিমিট সম্পর্কে বিস্তারিত | Bkash Limit

বিকাশ একাউন্ট থেকে লেনদেন করার ক্ষেত্রে আপনাকে অবশ্যই বিকাশ লিমিট সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নেওয়া লাগে, যাতে করে Bkash Limit সম্পর্কিত সমস্যা না পড়েন।

কারণ আপনি যদি বিকাশ লিমিট সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য জেনে নিতে না পারেন তাহলে দেখা যাবে কোন এক মাসে আপনি ইচ্ছামত লেনদেন করে নিলেন কিন্তু প্রয়োজনীয় সময় আর অ্যাকাউন্ট থেকে লেনদেন করতে পারলেন না।

যাতে করে এই সমস্যার মধ্যে আপনি না পারেন, সেজন্য বিকাশ একাউন্ট থেকে বিভিন্ন কাজ সম্পাদন করার জন্য যে সমস্ত লিমিট রয়েছে সেই লিমিট সম্পর্কে জেনে নেয়া আবশ্যক।

আর আজকের এই আর্টিকেলের মূলত আলোচনা করা হবে বিকাশ একাউন্ট ব্যবহার করার ক্ষেত্রে আপনি যে যেরকম লেনদেন করতে পারবেন, সে সমস্ত লেনদেন করার ক্ষেত্রে কি রকমের লিমিট প্রতিমাসে প্রযোজ্য হবে সেই সম্পর্কে।

বিকাশ লিমিট কি?

মূলত প্রতিমাসে বিকাশ একাউন্ট ব্যবহার করার ক্ষেত্রে বিকাশ ব্যবহারকারীকে কিছু নিয়মাবলী মধ্যে পড়তে হয় এবং কিছু নিয়মাবলীর মধ্যে টাকা লেনদেন করতে হয়, সেটি হলো বিকাশ লিমিট।

এই লিমিটের পরিসীমা দিন কিংবা মাসের জন্য হতে পারে এবং এই লিমিট মূলত বিকাশ অথরিটি থেকে ধার্য করা হয়।

আপনি দিন কিংবা মাসজুড়ে যে সমস্ত ট্রানজেকশন সম্পন্ন করবেন, যে সমস্ত ট্রানজেকশন করার ক্ষেত্রে যে লিমিট দেয়া আছে সেই লিমিট কখনোই ক্রস করতে পারবেন না।

বিকাশ এজেন্ট ক্যাশ ইন লিমিট

আপনি যদি বিকাশের একজনের এজেন্ট হয়ে থাকেন তাহলে বিকাশ এজেন্ট একাউন্ট ব্যবহার করার ক্ষেত্রে আপনি যদি টাকা লেনদেন করেন, তাহলে ক্যাশ ইন করার ক্ষেত্রে নির্দিষ্ট লিমিট প্রযোজ্য হবে।

এছাড়াও আপনি ২ টি উপায়ে আপনার এজেন্ট একাউন্টে টাকা ক্যাশ ইন করতে পারেন, আর সেগুলো হলো ব্যাংক থেকে ডিপোজিট এবং কার্ড থেকে ডিপোজিট।

বলাবাহুল্য, এই দুইটি উপায়ে আপনি যদি এজেন্ট একাউন্টে ক্যাশ ইন করেন তাহলে সমানসংখ্যক লিমিট প্রযোজ্য হবে।

তাহলে এবার জেনে নেয়া যাক প্রতিদিন কিংবা মাসের জন্য কিরকম এর সুযোগ সুবিধা উপভোগ করতে পারছেন।

  • আপনি চাইলে দিনের সর্বোচ্চ ৫ বার ক্যাশ ইন করতে পারবেন।
  • প্রতি মাসে সর্বোচ্চ ২৫ বার ক্যাশ ইন করতে পারবেন।
  • সর্বনিম্ন ২৫ টাকা ক্যাশ ইন করতে পারবেন এবং সর্বোচ্চ ৩০,০০০ টাকা ক্যাশ ইন করতে পারবেন।
  • প্রতিদিন আপনি চাইলে সর্বোচ্চ ৩০ হাজার টাকা ক্যাশ ইন করতে পারবেন এবং প্রতি মাসে সর্বোচ্চ ২ লক্ষ টাকা ক্যাশ ইন করতে পারবেন।

আর এটি হলো বিকাশ এজেন্ট এর জন্য যে ক্যাশ ইন করার লিমিট রয়েছে সেই লিমিট সম্পর্কে সর্বশেষ তথ্য।

বিকাশ সেন্ড মানি এবং ট্রান্সফার মানি লিমিট

  • প্রতিদিন আপনি সর্বোচ্চ ৫০ বার সেন্ড মানি করতে পারবেন এবং প্রতি মাসে সর্বোচ্চ ১০০ বার সেন্ড মানি করতে পারবেন।
  • আপনি চাইলে সর্বনিম্ন ১০ টাকা সেন্ড মানি করতে পারবেন এবং সর্বোচ্চ ২৫,০০০ টাকা সেন্ড মানি করতে পারবেন।
  • একদিনে সর্বোচ্চ ২৫,০০০ টাকা সেন্ড মানি করা যাবে এবং প্রতিমাসে ২,০০০০০ টাকা সেন্ড মানি করা যাবে।

মোবাইল রিচার্জ লিমিট

  • আপনি চাইলে বিকাশ একাউন্ট থেকে দিনে ৫০ বার মোবাইল রিচার্জ করতে পারবেন এবং মাসে সর্বোচ্চ ১৫০০ বার মোবাইল রিচার্জ করতে পারবেন।
  • এক্ষেত্রে আপনি সর্বনিম্ন ১০ টাকা রিচার্জ করতে পারবেন, এবং সর্বোচ্চ ১,০০০ টাকা রিচার্জ করতে পারবেন।
  • প্রতিদিন আপনি চাইলে ১,০০০ টাকা মোবাইল রিচার্জ করতে পারবেন এবং প্রতি মাসে সর্বোচ্চ ১,০০০০০ টাকা মোবাইল রিচার্জ করতে পারবেন।

বিকাশ ক্যাশ আউট লিমিট

আপনি হয়তো এই সম্পর্কে বিস্তারিত অবগত আছেন যে, আপনি চাইলে ভিন্ন তিনটি উপায়ে বিকাশ একাউন্ট থেকে ক্যাশ আউট করার কাজ সম্পন্ন করতে পারবেন।

এবার আপনি যদি এই তিনটি উপায়ে বিকাশ একাউন্ট থেকে ক্যাশ আউট করেন, তাহলে ভিন্ন ভিন্ন রকমের লিমিট প্রযোজ্য হবে এবং চার্জ প্রযোজ্য হবে।

মূলত আপনি চাইলে তিনটি উপায়ে ক্যাশ আউট করতে পারবেন আর সেই তিনটি উপায় হলোঃ

  1. এজেন্টের মাধ্যমে ক্যাশ আউট।
  2. এটিএম বুথের মাধ্যমে ক্যাশ আউট ব্রাক ব্যাংক থেকে।
  3. এটিএম থেকে ক্যাশ আউট অন্যান্য ব্যাংক থেকে।

আর উপরে উল্লেখিত তিনটি উপায়ে আপনি যদি ক্যাশ আউট করেন, তাহলে এই ক্যাশআউট করার ক্ষেত্রে ভিন্ন রকমের লিমিটেশনের আওতাধীনে আপনার একাউন্ট পড়বে।

এজেন্ট থেকে ক্যাশ আউট

  • এজেন্ট থেকে আপনি সর্বনিম্ন ৫০ টাকা থেকে শুরু করে সর্বোচ্চ ২৫,০০০ টাকা ক্যাশ আউট করতে পারবেন।

পার্টনার ব্যাংক থেকে ক্যাশ আউট লিমিট

  • বিকাশের যেকোনো পার্টনার ব্যাংক থেকে আপনি দিনে ৫বার ক্যাশ আউট করতে পারবেন এবং প্রতিমাসে সর্বোচ্চ ২০ বার ক্যাশ আউট করতে পারবেন।
  • এক্ষেত্রে আপনি সর্বনিম্ন ৩,০০০ টাকা এবং সর্বোচ্চ ২০,০০০ টাকা ক্যাশ আউট করতে পারবেন।
  • প্রতিদিন আপনি চাইলে সর্বোচ্চ ২৫,০০০ টাকা এবং প্রতিমাসে কমপক্ষে ১,৫০,০০০ টাকা ক্যাশ আউট করতে পারবেন।

এটিএম থেকে ক্যাশ আউট( ব্রাক ব্যাংক)

  • এছাড়াও ব্যাংকের এটিএম সেবা রয়েছে, এটিএম সেবার মাধ্যমে আপনি ক্যাশআউট করার ক্ষেত্রে বিভিন্ন রকমের লিমিটের প্রয়োজন হবে।
  • প্রতিদিন আপনি সর্বনিম্ন ২৫০০ টাকা এবং সর্বোচ্চ ১০,০০০ টাকা ক্যাশ আউট করতে পারবেন।

ইন্টারন্যাশনাল রেমিটেন্স লিমিট

  • প্রতিদিন আপনি চাইলে সর্বোচ্চ ১০বার লেনদেন করতে পারবেন এবং মাসে ৫০ টি লেনদেন করতে পারবেন।
  • সর্বনিম্ন ৫০ টাকা লেনদেন করতে পারবেন এবং সর্বোচ্চ ১,২৫,০০০ (২% সরকারি প্রণোদনাসহ)
  • দিনে সর্বোচ্চ ১,২৫,০০০ (২% সরকারি প্রণোদনাসহ) লেনদেন করতে পারবেন এবং প্রতি মাসে সর্বোচ্চ ৪,৫০,০০০ (২% সরকারি প্রণোদনাসহ) লেনদেন করতে পারবেন।

লিমিট দেখার নিয়ম

এছাড়াও আপনি যদি আপনার বিকাশ একাউন্টের বর্তমান লিমিট সম্পর্কে জেনে নিতে চান, তাহলে এটি খুব সহজেই জেনে নিতে পারবেন।

লিমিট সম্পর্কে সর্বশেষ তথ্য জেনে নেয়ার জন্য প্রথমত বিকাশ এপে লগইন করুন এবং তার পরে সেখানে যে মেনু বার হয়েছে, সেই মেনুবার থেকে “লিমিট” নামে যে অপশন রয়েছে সেই অপশন এর উপরে ক্লিক করুন।
বিকাশ লিমিট সম্পর্কে বিস্তারিত | Bkash Limit

তাহলেই আপনি আপনার বিকাশ একাউন্টের যে মাসিক কিংবা দৈনিক Limit রয়েছে সেই Bkash Limit সম্পর্কে সর্বশেষ তথ্য জেনে নিতে পারবেন।
বিকাশ লিমিট সম্পর্কে বিস্তারিত | Bkash Limit

মূলত, এখানে আপনি বিকাশ একাউন্টের মাধ্যমে লেনদেন করার ক্ষেত্রে যে সমস্ত উপায় রয়েছে সে সমস্ত উপায়ে আপনি আর কতবার এই মাসে লেনদেন করতে পারবেন, সেই সম্পর্কেও ধারণা নিতে পারবেন।

কারণ এই বিষয়টি সত্য যে, আপনি চাইলেই একাউন্টে যে লেনদেন করেছেন সেই লেনদেনের হিসাব কিংবা লিমিট মুখস্ত রাখতে পারবেন না। যার কারণে অ্যাপস এর মাধ্যমে আপনি এই লিমিট দেখে নিবেন।

আর এটিই হলো মূলত বিকাশের যে লিমিট আছে লিমিট সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য এবং যেটার মাধ্যমে আপনি টাকা লেনদেন করতে পারবেন।

ALso Read:

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top