Bkash calculator কি? বিকাশ ক্যালকুলেটর ব্যবহার করার নিয়ম

Bkash calculator কি? বিকাশ ক্যালকুলেটর ব্যবহার করার নিয়ম

আপনি যদি বিকাশ একাউন্টের বিভিন্ন রকমের চার্জ ক্যালকুলেট করতে চান কিংবা বিকাশ একাউন্টে বিভিন্ন রকমের বিষয়াদি ক্যালকুলেট করতে চান, তাহলে আপনি চাইলে Bkash calculator ব্যবহার করতে পারেন।

Bkash calculator ব্যবহারের মাধ্যমে বিকাশ একাউন্ট রিলেটেড যে সমস্ত কার্যক্রম আপনি সম্পূর্ণ করতে পারবেন সেই সমস্ত কার্যক্রম সম্পন্ন করার ক্ষেত্রে যে রকম চার্জ দিতে হবে সে সম্পর্কে জেনে নিতে পারবেন।

অর্থাৎ আপনি যদি বিকাশ একাউন্ট থেকে ক্যাশ আউট করেন, বিকাশ একাউন্ট থেকে ক্যাশ ইন করেন কিংবা ব্যাংক একাউন্ট থেকে বিকাশ একাউন্টে ডিপোজিট করেন, তাহলে লেনদেন করার ক্ষেত্রে কিরকম চার্জ প্রযোজ্য হবে, সেটি আপনার জেনে নেয়ার দরকার আছে।

এক্ষেত্রে আপনাকে কিছু সিম্পল স্টেপ ফলো করতে হবে যার মাধ্যমে আপনি চাইলে খুব সহজেই বিকাশ ক্যালকুলেটর ব্যবহারের মাধ্যমে বিকাশ চার্জ ক্যালকুলেট করতে পারবেন।

Bkash calculator আসলে কি?

বিকাশ ক্যালকুলেটর হল বিকাশের এমন একটি সার্ভিস পোর্টাল, এখান থেকে আপনি চাইলে বিভিন্ন রকমের ক্যালকুলেট করতে পারবেন।

এক্ষেত্রে ড্রপডাউন মেনু থেকে শুধুমাত্র আপনার প্রয়োজনীয় বিষয়টি সিলেক্ট করে নিতে হবে, তাহলে অটোমেটিকলি ওই কাজটি সম্পাদন করার ক্ষেত্রে যে রকম চার্জ হবে সেটি ক্যালকুলেট হয়ে যাবে।

এতে করে কোনো রকমের খাটনি আপনাকে রাখতে হবে না।

শুধুমাত্র সিম্পল আপনার সেবার কথাটি মেনশন করবেন, তাহলেই আপনার এই সেবা বাস্তবায়ন করার ক্ষেত্রে কি রকমের চার্জ প্রযোজ্য হবে, সে সম্পর্কে জেনে নিতে পারবেন।

Bkash calculator কিভাবে ব্যবহার করব?

বিকাশ ক্যালকুলেটর ব্যবহার করার জন্য প্রথমত আপনাকে বিকাশের যে অফিশিয়াল ক্যালকুলেটর ক্যালকুলেটর খুঁজে বের করতে হবে।

এই কাজটি করার জন্য আপনাকে প্রথমত নিম্নলিখিত লিংকে ভিজিট করবেন করতে হবে এবং তারপরে আমার দেখানোর নির্দেশনা অনুযায়ী step-by-step কাজ চালিয়ে যেতে হবে।

যখনই আপনি উপরে উল্লেখিত লিংকে ভিজিট করবেন তখন আপনার সামনে নিম্নলিখিত স্ক্রীনশটএর মত একটি পেজ ওপেন হবে। সেখান থেকে আপনি আপনার প্রয়োজনীয় সেবা সিলেক্ট করে নিতে পারবে।

এই কাজটি করার জন্য উপরে উল্লেখিত লিংকে ভিজিট করার পরে আপনার সামনে মূলত তিনটি বক্স ওপেন হবে, সেখান থেকে আপনি আপনার প্রয়োজনীয় ইনফরমেশন দিয়ে জেনে নিতে পারবেন।

এখান থেকে প্রথম বক্সটিতে রয়েছে ‘Service‘ নামের অপশন পাবেন, সেখান থেকে আপনি আপনার সার্ভিসকে বেছে নিতে পারবেন।

অর্থাৎ আপনি কি রকমের কার্য সম্পাদন করার জন্য চার্জ জেনে নিতে চান, সেটি এখান থেকে সিলেক্ট করে নিতে পারবেন।

সার্ভিস অপশনটির উপরে ক্লিক করার পরে আপনার সামনে বিভিন্ন রকমের সার্ভিসের কথা মেনশন করা হবে, সেখান থেকে আপনি আপনার যে সার্ভিস সিলেক্ট করতে চান, সেটি সিলেক্ট করে নিতে পারবেন।

 

Bkash calculator কি? বিকাশ ক্যালকুলেটর ব্যবহার করার নিয়ম

 

এর পরবর্তী বক্সে অ্যামাউন্ট লিখে দিতে হবে অর্থাৎ আপনি কত টাকা এমাউন্টের চার্জ দেখতে চান সেটা এখানে লিখে দিতে হবে।

উদাহরণস্বরূপ, আপনি যদি ১০০০ টাকা ক্যাশ আউট করতে চান তাহলে এখানে ১০০০ টাকা লিখে দিন। তাহলে আপনার ১০০০ টাকা ক্যাশ আউট করার ক্ষেত্রে যে চার্জ রয়েছে সেটি আপনি দেখে নিতে পারবেন।

এই দুইটি ইনফরমেশন ফিলাপ করে নেয়ার পরে একদম শেষের দিকে ক্যালকুলেট নামের একটি বাটন আপনি দেখতে পারবেন, ‘Calculate’ বাটন এর উপরে ক্লিক করুন।

যখনই আপনি ক্যালকুলেট বাটন এর উপরে ক্লিক করে দিবেন তখন এই ওয়েব পেইজ টি অটোমেটিকলি আপনাকে আপনার প্রয়োজনীয় অংকের টাকা ক্যাশ আউট করার ক্ষেত্রে যত টাকা চার্জ আসবে, সেই চার্জ দিয়ে দিবে।

Bkash calculator কি? বিকাশ ক্যালকুলেটর ব্যবহার করার নিয়ম

আর উপরে উল্লেখিত উপায়ে আপনি চাইলে খুব সহজে বিকাশ ক্যালকুলেটর ব্যবহার করার মাধ্যমে আপনার যেকোন রকমের বিকাশ চার্জ সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নিতে পারবেন।

আর এটি হল মূলত বিকাশ ক্যালকুলেটর ব্যবহার করার যে সিম্পল নিয়ম রয়েছে, সেই সিম্পল নিয়ম। আশা করি আপনি এই সম্পর্কে জেনে নিতে পেরেছেন।

Also Read:

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top