Bkash Helpline and Customer care number | বিকাশ হেল্পলাইন

বিকাশ একাউন্ট থেকে সর্বাধিক সেবা পাওয়ার জন্য বিকাশ হেল্পলাইন নাম্বার যে রয়েছে এই BKash Helpline Number কল করার মাধ্যমে আপনি চাইলে সহজেই সেবা নিতে পারবেন।

তবে আমাদের মধ্যে এরকম অনেকেই রয়েছেন যারা কিনা বিকাশ একাউন্টে যে BKash Helpline Number রয়েছে সে Bkash Customer care Number সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য জানেন না।

আজকের এই আর্টিকেলের মূলত আলোচনা করা হবে Bkash Customer care Number সম্পর্কে। এবং বোনাস হিসেবে আলোচনা করা হবে কিভাবে আপনি চাইলে ফ্রিতে কাস্টমার কেয়ার নাম্বার কল করতে পারেন এ সম্পর্কে তথ্য।

কারণ, আপনি হয়তো এ সম্পর্কে পুরোপুরি অবগত আছেন যে কাস্টমার কেয়ার নাম্বার এর যদি আপনি কল করে ফেলেন, তাহলে চার্জ হিসেবে খুব বেশি পরিমাণে টাকা কাটা যায়।

সেজন্য বিকাশ হেল্পলাইন নাম্বার সম্পর্কে এবং বিকাশ নাম্বারে ফ্রিতে কল করার নিয়ম সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য সংগ্রহ করার জন্য এই আর্টিকেলটি আপনার জন্য একটি বোনাস আর্টিকেল হিসেবে রইল।

বিকাশ হেল্পলাইন নাম্বার কোনটি?

বিকাশ থেকে আপনি যদি সার্বক্ষণিক সেবা নিতে চান এবং বিকাশের সম্পর্কে বিভিন্ন প্রশ্ন আপনার মনের মধ্যে যদি জেগে থাকে, তাহলে আপনি হেল্পলাইন নাম্বারে সেগুলো জানাতে।

বিকাশ হেল্পলাইন নাম্বার নিচে দেয়া হল’

Bkash Helpline Number
16247

উপরে উল্লেখিত Bkash Customer care Number এ যখনই আপনি কল করবেন, তখন সর্বপ্রথম বিকাশে যে সেটাপ করা রয়েছে সেই মেনু থেকে আপনাকে ফ্রিতে সেবা দেয়া হবে।

এবং যখনই আপনি বিকাশ কাস্টমার কেয়ারের সাথে কথা বলতে চাইবেন, তখন সহজেই আপনি এই কাস্টমার কেয়ারের সাথে কথা বলতে পারবেন এবং সেবা নিতে পারবেন।

এছাড়াও বিকাশ কাস্টমার কেয়ার নাম্বার থেকে সেবা পাওয়ার জন্য আরেকটি সিক্রেট নাম্বার বিদ্যমান রয়েছে, সেই নাম্বারটি মেনশন করা হলো

Bkash Number
০২-৫৫৬৬৩০০১

উপরে উল্লেখিত কাস্টমার কেয়ার নাম্বার আপনি চাইলে যেকোন অপারেটরের সিম থেকে কল করে সর্বক্ষণিক সেবা নিতে পারবেন।

Bkash Customer care Number ফ্রি কল করার নিয়ম

বিকাশের যে হেল্পলাইন কেয়ার নাম্বার রয়েছে, সে কাস্টমার কেয়ার নাম্বার কালেক্ট করে নেয়ার পরে এবার আপনি যদি যেকোনো সিম থেকে কল করেন না কেন এতে এক্সট্রা চার্জ প্রযোজ্য হবে।

অর্থাৎ প্রতিটি কলের জন্য খুব বেশি পরিমাণে থাকে চার্জ করা হবে। যা আপনার সাধারন কলের চেয়ে থেকে কয়েক গুণ বেশি

এখন আপনি যদি কাস্টমার কেয়ার নাম্বার এ ফ্রিতে কল করতে চান, তাহলে যে সমস্ত উপায় অনুসরণ করতে হবে কিংবা কি উপায় আপনি ফ্রী কল করতে পারবেন সেটি নিচে থেকে জেনে নিন।

ফ্রিতে কল করার জন্য প্রথমে নিম্নলিখিত লিংক থেকে আপনার Amber IT নামে যে এপস আছে সেই অ্যাপটি ডাউনলোড করে নিন।

Download App for Android Download App for IOS

 

যখনই আপনি উপরে উল্লেখিত লিংক থেকে আম্বার আইটি নামের অ্যাপস টি ডাউনলোড করে নিবেন, তখন এই অ্যাপসটিতে রেজিস্ট্রেশন করা কাজ সম্পন্ন করে নিতে হবে।

মনে রাখবেন, এই অ্যাপটিতে রেজিস্ট্রেশন করার ক্ষেত্রে আপনার নেশনাল আইডি কার্ড কিংবা অন্য যে কোনো রকমের ডকুমেন্টস এর প্রয়োজন হবে।

কারণ, আপনি যেহেতু এই অ্যাপটির মাধ্যমে কল করার সেবা উপভোগ করতে পারবেন, সেজন্য সিকিউরিটি নিশ্চয়তার জন্য এ সমস্ত ডকুমেন্টস এর সহায়তায় একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করতে হবে।

অ্যাপ টিতে প্রবেশ করার পরে প্রথমে আপনি যে কোন নাম্বার দিয়ে একাউন্ট তৈরী করতে চান সেই ফোন নাম্বারটি দিয়ে দিন এবং তারপরে কন্টিনিউ বাটনে ক্লিক করুন।

Bkash Helpline and Customer care number| বিকাশ হেল্পলাইন

এরপরে আপনার ওই নাম্বারে একটি ওটিপি প্রেরণ করা হবে সেই ওটিপি সংরক্ষণ এবং তার এটি যথাযথ স্থানে বসিয়ে দিয়ে ভেরিফিকেশন এর কাজ সম্পন্ন করে নিন।

ভেরিফিকেশন করার কাজ সম্পন্ন করে নিলে এবার আপনাকে এই অ্যাপসটিতে রেজিস্ট্রেশন বা জন্য যে যে কোন ডকুমেন্ট দিতে বলবে; আপনি চাইলে ন্যাশনাল আইডি কার্ড কিংবা অন্য যে কোন ডকুমেন্ট এর মাধ্যমে একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করতে পারবেন।

একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করার জন্য আপনাকে মূলত কয়েকটি বক্স দেয়া হবে, সেখানে আপনার এনআইডি কার্ডের নাম্বার এনআইডি কার্ড যে নামে তৈরি করা সেই নাম এবং এনআইডি কার্ডের সামনে এবং পিছনে ছবি তুলতে হবে।

 

যখনই এই সমস্ত ডকুমেন্ট দিবেন তখন সর্বশেষ ধাপে আপনার একটি ছবি তুলতে হবে। সেই ছবিটি অবশ্যই এনআইডি কার্ড সাংঘর্ষিক হতে হবে।

অর্থাৎ যে এনআইডি কার্ড দিয়ে আপনি একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করেছেন, সেই আইডি কার্ডের যে ব্যবহারকারী রয়েছেন তার ছবি তুলতে হবে। আপনি যদি হয়ে থাকেন তাহলে আপনার ছবি তুলতে হবে।

এরপরে আপনাকে কিছু সময় অপেক্ষা করতে হবে যতক্ষণ না তারা আপনার অ্যাকাউন্ট রিভিউ করে এবং একাউন্ট ভেরিফাই করার কাজ সম্পন্ন হয়ে যায়।

একাউন্ট ভেরিফাইড হয়েছে কিনা সে সম্পর্কে বুঝতে হলে প্রথমে এই অ্যাপসটিতে প্রবেশ করুন। এবং তারপরে এখানে চারটি বাটন এর মত একটি অপশন থাকবে।

ডানপাশের দিকে লক্ষ করুন এবং এর উপরে ক্লিক করুন এবং তারপরে একাউন্ট নামের অপশনের উপরে ক্লিক করুন।

Bkash Helpline and Customer care number| বিকাশ হেল্পলাইন

তাহলে আপনি দেখে নিতে পারবেন আপনার আইডি কার্ড নাম্বার এবং আপনার যে ফোন নাম্বার দিয়ে একাউন্ট তৈরি করেছিলেন সেই ফোন নম্বর রিলেটেড সমস্ত ডকুমেন্ট।

এবার যদি আপনার এনআইডি কার্ড দিয়ে একাউন্ট ভেরিফাই করার কাজ সম্পন্ন হয়ে যায় তাহলে আপনার আইডি কার্ড নাম্বার এর পাশে ভেরিফাইড লেখা থাকবে।

যার মানে হল, আপনার একাউন্ট ভেরিফাই করা সম্পন্ন হয়ে গেছে।

Bkash Helpline and Customer care number| বিকাশ হেল্পলাইন

যখন আপনার অ্যাকাউন্ট ভেরিফাই করার কাজ সম্পন্ন হয়ে যাবে, তখন আপনি একাউন্টে বোনাস হিসেবে ১০ টাকা পাবেন। এই ১০ টাকা দিয়ে যে কারো সাথে কলে কথা বলতে পারবেন।

এবার Bkash Customer care Number কল করার জন্য যে ডায়াল প্যাড রয়েছে সেই ডায়াল পেডে চলে যান এবং বিকাশ হেল্পলাইন নাম্বার রয়েছে সেই Bkash Helpline Number টাইপ করুন এবং তারপরে কল বাটনে ক্লিক করুন।

তাহলে আপনি দেখতে পারবেন যে নাম্বারে কল করেন না কেনো সেই নাম্বার একদম ফ্রিতে কল চলে গেছে এবং আপনার অ্যাকাউন্ট থেকে কোন রকমের চার্জ প্রযোজ্য হচ্ছে না।

আর উপরে উল্লেখিত উপায় শুধুমাত্র বিকাশ হেল্পলাইন নাম্বার নয়, আপনি চাইলে যেকোন রকমের হেলপ্লাইন কিংবা কাস্টমার কেয়ার নাম্বার এ ফ্রিতে কল করতে পারবেন কোনো রকমের চার্জ ছাড়া।

আম্বার আইটি হলো সেই কার্যকরী একটি অ্যাপস এর মাধ্যমে আপনি খুব সহজেই যেকোন কাস্টমার কেয়ার নাম্বার এ কল করতে পারবেন।

এছাড়াও বিকাশের কাস্টমার কেয়ার নাম্বার যে আছে সেই নাম্বারে কল করতে পারবেন।

Also read:

Leave a Comment

Your email address will not be published.

Scroll to Top